বিচ্ছেদ এসএমএস বাংলা Breaking Up Bangla sms


বিচ্ছেদ এসএমএস বাংলা Breaking Up Bangla sms



অপূর্ণ কিছু মূহুর্ত.. কিছু ভালবাসা অপূর্ণ.. অপূর্ণ কিছু স্বপ্ন.. কিছু ইচ্ছা অপূর্ণ... কিছু যন্ত্রনা দিয়েছে আমাকে সে.. কিছু গভীর ক্ষত.. কয়েকটা শ্বাস--অপূর্ণ তাও....

অনুরোধে নয় অনুরাগে তোমাকে চাই____ অভিলাষে নয় অনুভবে তোমাকে চাই____ বাস্তবে না পেলেও কল্পনাতে তোমাকে চাই____ জীবনে তোমায় না পেলে,ওপারে তোমাকে চাই____

অন্ধকারে জমানো চিরকুটগুলো ছিড়ে ফেলবো, কিংবা ডুবে থাকবো ডিপ্রেশনে . . আমৃত্যু । তবুও জেনে রেখো, আমি ছিলাম একদিন, তোমার হাড়-পাঁজরে মিশে একা একা.. আজ নিজের আগুনে জ্বলতে থাকা জোনাকি পোকা...

অন্য আকাশে উড়ে দেখিস সুখটা কাকে বলে.... ক্লান্ত হলে ফিরে আসিস আমার চেনা ঘরে... কখনো যদি চোখের পাতা ভিজে যায় জলে... বুঝতে পারবি পাঁজর ভাঙ্গার কষ্ট কাকে বলে...

অনেক ভালোবেসেছিলাম তোমায়, কিন্তু কখনো তুমি বুঝতে চাও নি... বুঝবেই বা কি করে, কখনো তো তুমি আমাকে ভালই বাসো নি! ভালবাসতে গেলে মন লাগে তোমার কাছে তো কখনও মন-ই ছিল না! আর আমি পাগল ভাবতাম তুমিও আমাকে ভালোবাসো!

অনেক দিন পর তোমাকে দেখলাম___ তোমাকে দেখে থমকে দাঁড়িয়ে ছিলাম___ আমি খুব কষ্টে নিজেকে সামলে নিলাম___ যখন তুমি আমাকে দেখে না দেখার ভান করলে তখন আমার দারুন লেগেছে ___ তোমাকে সেই অনূভুতির কথা বলে বোঝাতে পারবো না...

অনেক দিন এর অভিমান ছিল- রাত জেগে কথা হয়না । এক সাথে সকাল দেখা হযনা । অাজ অনেক কথা হল । তুই ফোন এর ওপার এ নেই। পাশে ছিল বালিশটা । অামার কথা বোঝেনি সে কিন্তু অামার চোখ এর জল সারা গাযে মেখেছে ।।

অনেক কষ্ট পেয়ে আমি আজ যা বুঝেছি তা হল, কাউকে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি মূল্য দিয়েছিলাম বলেই আজ আমি এত মূল্যহীন হয়ে পড়েছি...

অদ্ভুত হলেও সত্যি: যখন আমরা ছোটো ছিলাম,জোরে জোরে কাঁদতাম যা আমাদের কাছে নেই তাকে পাওয়ার জন্যে... আর এখন যখন আমরা বড় হয়ে গেছি, এখন আস্তে আস্তে কাঁদি যা আমাদের কাছে ছিল তাকে ভোলানোর জন্যে...

অতীতটা স্মৃতি রোমন্থন করার জন্যে নিশ্চই খুব ভালো..কিন্তু অতীতের গর্ভে থাকার মানে বর্তমানকে অস্বীকার করা... বর্তমান কে অস্বীকার করে কেউ কোনদিন জীবনে সফল হতে পারে না...

অতীতে বদ্ধ থেকে নিজের গতিকে তুমি করতে পারো অবরুদ্ধ.. আবার অজানার পথ বেছে নিয়ে তুমি এগিয়ে চলতে পারো নতুন আশা নিয়ে... যাই করো না কেন, জীবন কখনই তোমার জন্যে থেমে থাকবে না... জীবন চলবে জীবনের পথে...

অতিরিক্ত মন খারাপ হলে মানুষ একেবারে নীরব নিথর হয়ে যায়... একা থাকতে ভালোবাসে। কারণ তখন তার সমস্যাকে নিজের মত করে কেউ দেখে না কিংবা মূল্যায়ন করে না। তাই মন খারাপের বেলায় একাকীত্বই হয় মানুষের একমাত্র সঙ্গী।

অতিথি পাখি হয়ে কারোজীবনেযেওনা, হয়তো তুমি তাকে কিছুদিন.হাসাবে তুমি যখন ছেড়ে যাবে তোমার আপন ঠিকানায, তখন সেসারা জীবন কাঁদবে তোমার বেদনায়...

অতঃপর তুমি একটা চিঠি লিখেছিলাম, তোমার উদ্দেশ্যে। ছোট্ট সাদা কাগজে, কিছু হিবিজিবি লেখা, ১৫ টাকার জেলপেন দিয়ে। কুচকুচে গাঢ় কালো রং, অস্পষ্ট কিছু বর্নমালার আড়ম্বর। ভাজ করে তুলে রেখেছি ঠিকানা নেই জানা, পোস্ট করব কোথায়? তুমি পাবেই বা কিভাবে? আধুনিকতার এই যুগে, ইমেইল,মেসেজিং আর চ্যাটিং এর কাছে, আমার চিঠি হয়ত কিছুই না। শুধু বোকার মতো পাগলামি!

অচিন পুরের কোন এক রাস্তার অতিথি ছিলে তুমি, পথ ভুলে চলে এলে সঙ্গী হলাম আমি। পথ খুঁজে পেতেই চলে গেলে তুমি, হয়ে গেলাম আগের মতো সেই একা আমি..!

অামি ক্লান্ত পথিক , অবিরাম ছুটে চলেছি মরিচিকার পিছে , মরুদ্যানের জন্য । তপ্ত মরুভুমির মাঝে দিশেহারা হযে্ ছুটে চলেছি এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত পাগলের মতো । শুধু মরুদ্যানেল কোমল ছাযা্য্ নিজেকে শিতল করবো বলে। কিন্তু পারি না । তাকে ধরতে গেলে সে অারো দুর থেকে দুরে হারিযে্ যায্ , তলিযে্ যায্ মরু সুমুদ্রে । যার কুল , গভিরতা অামার কিছুই জানা নেই । তাই এই মরুমাঝে পরে কাটার অাচরে অামার দেহ রক্তাক্ত , উষ্ন বালিতে অামার মন দ্বগ্ধ ,প্রান ওষ্ঠাগত । অামার কি সলিল সমাধি হবে , মরুদ্যানের অাশায্ , এই মরুপ্রান্তে.....। জানি না.....

ABCDEFGHIJKLMNOPQRSTUVWXYZ কিছু না..দেখছিলাম যে আমার মোবাইলের বাটনগুলো ঠিকঠাক কাজ করছে না.. গুড মর্নিং..

“তুমি তার জন্য কাঁদো কারন তুমি তাকে এখনও ভালোবাস,তোমার কান্না দেখে সে হাসে কারন সে কখনোই তোমাকে ভালোবাসোনি।শুধু সময়ের প্রয়োজনে কাছে এসেছিল আবার সময়ের পরিবর্তনে চলে গেছে,মাঝখানে যা কিছু হয়েছিল সব আবেগ আর শেষে যা হয়েছে সব প্রতারণা”।

"মানুষ তখন কাঁদে, যখন মনের সাথে যুদ্ধ করে হেরে যায়। যখন আপন পর হয়, স্বপ্ন ভেঙ্গে যায়, তখন বুকের চাপা কষ্ট গুলি চোখ্ দিয়ে অস্রু হয়ে ঝরে~

"ব্রেক আপ" অনেকটা একটা ভাঙা আয়নার মতন... যে ভাঙা আয়নাটাকে ভাঙা অবস্থাতেই থাকতে দেওয়া ভালো..কারণ সেটাকে জুড়তে গেলে হাত কেটে যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা...