Thursday, February 15, 2018

মজার প্রশ্ন - উত্তর funny questions and answers

মজার প্রশ্ন - উত্তর funny questions and answers


বিখ্যাতরা প্রায়ই বিভিন্ন প্রশ্নের মজার উত্তর দিয়ে থাকেন। যেহেতু তারা বিখ্যাত।
বিখ্যাত ব্যাক্তিদের এই রকম কিছু মজার প্রশ্ন ও তার উত্তর ……


১. সুপারম্যান খ্যাত অভিনেতা ক্রিস্টোফার রীভকে একবার প্রশ্ন করা হয়েছিল -সুপারম্যান আর জেন্টেলম্যান এর মধ্যে পার্থক্য কি?
তিনি গম্ভীর মুখে উত্তর দিলেন- সহজ পার্থক্য। জেন্টেলম্যানরা আন্ডারঅয়্যার পরে প্যান্টের নিচে আর সুপারম্যান পরে ওপরে।

২. কিংবদন্তীমুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীকে প্লেনে উড়বার আগে সিট বেল্ট বাঁধার কথা মনে করিয়ে দিলেন বিমানবালা।
আলী অহংকারী গলায় উত্তর দিলেন- সুপারম্যানের সিট বেল্ট বাধার প্রয়োজন হয়না।
কিন্তু সত্যিকার সুপারম্যানের প্লেনে চড়বারও দরকার হয় না-বিমানবালা চটপট উত্তর দেয়।

৩. স্বামী বিবেকানন্দের বাবা তার বৈঠকখানায় অনেকগুলি হুকো রাখতেন যেন এক জনের পান করা হুকো মুখে দিয়ে অন্যের জাত না যায়। একদিন বিবেকানন্দ সবগুলো হুকোয় একবার করে টান দিলেন।
এ তুমি কি করলে -ক্ষেপে গিয়ে উনার বাবা জানতে চাইলেন। দেখলাম জাত যায় কিনা-বিবেকানন্দের উত্তর।

৪. একবার এক মহিলা কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্য কিছু পিঠা বানিয়ে নিয়ে যান। কেমন লাগল পিঠা জানতে চাইলে কবি গুরু উত্তর দেন-
লৌহ কঠিন, প্রস্তর কঠিন, আর কঠিন ইষ্টক, তাহার অধিক কঠিন কন্যা তোমার হাতের পিষ্টক।

৫. কবি মাইকেল মধুসুদনের অর্থিক অনটনের সময় ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর উনাকে টাকা পয়সা দিয়ে সাহায্য করতেন। একদিন এক মাতাল ওনার কাছে সাহায্য চাইতে এলে বিদ্যাসাগর বললেন-আমি কোন মাতালকে সাহায্য করি না।
কিন্তু আপনি যে মধুসুদনকে সাহায্য করেন তিনি ও তো মদ খান -মাতালের উত্তর।
বিদ্যাসাগর উত্তর দেন -ঠিক আছে আমিও তোমাকে মধুসুদনের মত সাহায্য করতে রাজী আছি তবে তুমি তার আগে একটি মেঘনাথ বধ কাব্য লিখে আনো দেখি।

৬. বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইন এর মেধার তুলনায় চেহারা ছিল নিতান্তই সাদামাটা। একবার এক সুন্দরী অভিনেত্রী প্রস্তাব দেন-চলুন আমরা বিয়ে করে ফেলি। তাহলে আমাদের সন্তানের চেহারা হবে আমার মত সুন্দর আর মেধা হবে আপনার মত প্রখর।
কিন্তু যদি ঠিক এর উল্টোটা ঘটে তবে কি হবে-আইনস্টাইন নির্বিকার ভাবে উত্তর দেন।

৭. স্যার উইন্সটন চার্চিলের তর্ক হচ্ছিল নারী নেত্রী ন্যান্সি অ্যাস্টয়ের সাথে। তর্ক একসময় রীতিমতো ঝগড়ার পর্যায়ে চলে যায়। গলা উচিয়ে ন্যান্সি বলেন-তোমার সাথে বিয়ে হলে কফিতে বিষ মিশিয়ে আমি তোমাকে খুন করতাম।
চার্চিল উত্তর দেন- তোমার মত বউ হলে বিষ খেয়ে মরতে আমার কোনও আপত্তি থাকত না।

৮. একবার এক ছাত্র মার্ক টোয়েনের কাছে এসে বলল-আমি ডাক্তারি পড়া ছেড়ে দিয়েছি। এখন সাহিত্য চর্চার মধ্য দিয়ে মানুষের উপকার করতে চাই।
মার্ক টোয়েন উত্তর দিলেন-তুমি ডাক্তারী পড়া ছেড়ে দিয়ে এমনিতেই মানবজাতির অনেক উপকার করেছ। আর উপকার না করলেও চলবে।

৯. মার্ক টোয়েন একবার উনার এক সাংবাদিক বন্ধুকে বললেন বছর দশেক লেখালেখি করার পর বুঝতে পারলাম এ ব্যাপারে আমার কোনও প্রতিভা নেই।
তাহলে এটা বুঝবার পরও তুমি কেন লেখালেখি চালিযে যাচ্ছ ? -বন্ধু জানতে চায়।
মার্ক টোয়েন উত্তর দেন-কি করব, ততদিনে আমি রীতিমতো বিখ্যাত হয়ে গেছি যে।

১০. সমাধীস্থলের চারদিকেল দেয়ালের জন্য মার্ক টোয়েনের কাছে চাঁদা চাইতে গেলে তিনি উত্তর দেন-সমাধীস্থলের চারদিকে দেয়াল দেয়ার কোন প্রয়োজন দেখি না। কারণ যারা ওখানে থাকে তাদের বাইরে বেরিয়ে আসার ক্ষমতা নেই। আর যারা বাইরে থাকেন তাদের ওখানে যাবার কোন ইচ্ছে আছে বলে আমার মনে হয় না।

১১. প্রশ্ন: আইন কেন একজন পুরুষকে একাধিক বিয়ে করতে দিতে চায় না?

উত্তর: কারণ একজনকে একটি অপরাধের শাস্তি মাত্র একবারই দেওয়া যায়।

১২. প্রশ্ন: ‘ফুটবলের রেফারির কি উচিত ঘুষ হিসেবে উপার্জিত টাকার ট্যাক্স পে করা?’

উত্তর: যদি রেফারি হয় সৎ ও নীতিবান।’

১৩. প্রশ্ন: রাত ১২:৩০ এ প্রেমিকের বাইকে করে বাসায় ফিরে এসে দেখলে মা রক্তচক্ষু আর ঝাড়ু নিয়ে দাড়িয়ে আছে। তখন কি বলবে তুমি?

উত্তর: “এখনও ঘর পরিষ্কার করছ?”

১৪. প্রশ্ন: পৃথিবীর সবচেয়ে প্রচীন প্রাণী কোনটি?

উত্তর: জেব্রা। কারন এটি সাদা-কালো !

১৫. প্রশ্ন: খালাম্মা ডেকচির ঢাকনা খুইজ্জা পাইনা?
উত্তর: এক কাজ কর। “ডেকচির ঢাকনা” লেইখা গুগলে সার্চ দে।

১৬ প্রশ্ন: ছোটাপ্পি, পাশের বাসার বাবুটার রক্তে ম্যালিরিয়ার ভাইরাস পাওয়া গেছে। আমার ও তো হতে পারে?
উত্তর: ভয় পাস না গিট্টু। তিন দিন পর পর তোর এন্টিভাইরাস নেট থেকে আপডেট করে দিবো। তুই খালি প্রতি সপ্তাহে পুরা বডি স্ক্যান করবি।

১৭. প্রশ্ন: আ-হায়রে দোস্ত শার্টে চা পইড়া তো ভাইসা গেলো। এখন কি হবে?
উত্তর: খাড়া ফটোশপ CS100 দিয়া তোর শার্টের দাগ মুইছা দিতাছি।

১৮ প্রশ্ন: ওগো শুনছো। আমার না খুব ভয় করছে। যদি রাতে চোরে আছে?
উত্তর: ভয় পেয়েও না। বাড়ির চারপাশে ফায়ারওয়াল এক্টিভেট করা আছে।

১৯ প্রশ্ন: এই বৃষ্টিতে কীভাবে স্কুলে যাবো মা?
উত্তর: তোমাকে ই মেইল করে স্কুলে পাঠাবো বাবা !!!

২০ প্রশ্ন: মানুষ মাত্রই কি ভুল হয়? নিজের ভুলভ্রান্তি নিয়ে কী ভাবতেন আইনস্টাইন?

১৯৩৫ সালে প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটিতে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল,

‘পড়াশোনা ও গবেষণার জন্য আপনার কী কী দরকার?’

আইনস্টাইন বললেন, ‘একটা ডেস্ক, কিছু কাগজ আর একটা পেনসিল। সঙ্গে দরকার বড় একটা ডাস্টবিন, যেখানে আমার সব ভুল করা বা ভুলে ভরা কাগজগুলো ফেলব!’

২১ প্রশ্ন: নিজের যাবতীয় খুঁত ও ত্রুটি সম্পর্কে জানতে চাইলে কোনো পুরুষের কী করা উচিত?
উত্তর: বিয়ে।

২২ প্রশ্ন: বলুন দেখি, সত্য এবং মিথ্যার মধ্যে পার্থক্য কী?
উত্তর: সত্য বলে ফেললেই হয়। কিন্তু মিথ্যা বলার পর মনে রাখতে হয়!

২৩ প্রশ্ন:ধরুন....আপনি একটি দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন। এক পর্যায়ে আপনি দ্বিতীয় প্রতিযোগিকে ওভারটেক করলেন। আপনার অবস্থান কত?

উত্তর: যদি আপনি মনে করে থাকেন আপনার অবস্থান 'প্রথম'। তাহলে আপনার ধারনা ভুল। দ্বিতীয় প্রতিযোগিকে ওভারটেক করার পর... আপনি তৃতীয় অবস্থান থেকে এখন রয়েছেন দ্বিতীয় অবস্থানে। প্রথম প্রতিযোগি প্রথম অবস্থানেই আছেন।

২৪ প্রশ্ন: যদি আপনি সর্বশেষ প্রতিযেগিকে ওভারটেক করেন, তখন আপনার অবস্থান........কত?

উত্তর: যদি আপনার উত্তর হয়ে থাকে ''সর্বশেষ প্রতিযোগির ঠিক আগের অবস্থানে'', তাহলে আপনি এবারও ভুল! আপনি-ই বলেন, সর্বশেষ প্রতিযোগিকে কিভাবে ওভারটেক করা সম্ভব?!?! সেক্ষেত্রে আপনি নিজেই তো ছিলেন সর্বশেষ প্রতিযোগি!

২৫ প্রশ্ন: ১০০০ এর সাথে ৪০ যোগ করুন। যোগ করুন আরও ১০০০, তারপর আরও ৩০। এবার যোগ করুন আরও ১০০০ এবং ২০। এরপর যোগ করুন আরও ১০০০ এবং ১০। মোট কত হলো?

আপনার প্রাপ্ত যোগফল কি ৫০০০? সিওর?

সঠিক উত্তর ৪১০০। বিশ্বাস না হলে খাতা-কলমে যোগ করে দেখুন!

২৬ প্রশ্ন: একজন বোবা ব্যাক্তি একটি দোকানে গেছেন টুথব্রাশ কিনতে। তিনি বার বার অভিনয় করে... দাঁত ব্রাশ করার ভঙ্গি করে দোকানী-কে বোঝানোর চেষ্টা করলেন, তিনি কি চাচ্ছেন। দোকানী সহজেই বিষয়টি বুঝলো এবং লোকটিকে একটি টুথব্রাশ দিয়ে দিল।






এবার বলুন একজন অন্ধ ব্যক্তি একটি সানগ্লাস কেনার জন্য দোকানীকে কিভাবে বুঝাবেন, তিনি কি চাচ্ছেন?






প্রতিটি প্রশ্নের জন্য নির্ধারিত সময় ১০ সেকেন্ড এবং সঠিক জবাবের জন্য নির্ধারিত নম্বর ১ হলে..... আপনার অবস্থান নির্ণয় করা মোটেই কঠিন কোন কাজ হবেনা আশা করি! কি বলেন?

২৭ প্রশ্ন: জন্মের সময় আমি খুব কেঁদেছিলাম কিন্তু এখন আমার সব কিছুতেই হাসি পায়।

আমি জন্মের প্রয়োজনে ছোট হয়েছিলাম এখন মৃত্যুর প্রয়োজনে বড় হচ্ছি।

২৯ প্রশ্ন: —–>জীবনের ৫টি চরম সত্য কি?<—–

১. মায়ের মত কেউ আপন হয় না ।

২. গরিবের কোন বন্ধু হয় না ।

৩. মানুষ সুন্দর মনকে খোজে না, সুন্দর চেহারা খোজে ।

৪. সম্মান শুধু টাকার আছে মানুষের নেই ।

৫. মানুষ যাকেই বেশি ভালবাসে সে বেশি কষ্ট দেয় ।

মা কখন মিথ্যে কথা বলে ????? ।



যখন রাতে মাত্র ৪ টা রুটি থাকে , আর সদস্য সংখা ৫ হয়, মা তখন বলে -” আমি একটু আগে খেয়েছি । “ মা এর ভালোবাসা এমন ই . . . . .

৩০ প্রশ্ন: এই পৃথিবীর সবচে’ সুন্দর জিনিস কী?

মানুষের বিস্মিত চোখ। আমার ধারণা, সৃষ্টিকর্তা মানুষের বিস্মিত চোখ দেখতেই সবচে’ পছন্দ করেন, যে কারণে প্রতিনিয়ত মানুষকে বিস্মিত করার চেষ্টা তিনি চালিয়ে যান। যাদের তিনি অপছন্দ করেন তাদের কাছ থেকে বিস্মিত হবার ক্ষমতা কেড়ে নেন। তারা প্রতিনিয়ত বিস্মিত হয় না …

৩১ প্রশ্ন: জুমু’আর দিনের পাঁচটি বৈশিষ্ট্য:

১, এই দিনে আদম (আ:)-কে সৃষ্টি করা হয়েছে।

২, এই দিনে আল্লাহ্ তা’আলা আদম (আ:)-কে দুনিয়াতে নামিয়ে দিয়েছেন।

৩, এই দিনে আদম (আ:) মৃত্যুবরণ করেছেন।

৪, এই দিনে এমন একটি সময় রয়েছে, যে সময়ে হারাম ছাড়া যে কোন জিনিস প্রার্থনা করলে আল্লাহ তা প্রদান করেন।

৫, এই দিনে কিয়ামত সংঘটিত হবে। তাই আসমান, যমীন ও আল্লাহর সকল নৈকট্যশীল ফেরেশতা জুমু’আর দিনকে ভয় করে।(ইবনে মাজাহ্, মুসনাদে আহমদ)

রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, “জুম’আর সালাতে তিন ধরনের লোক হাজির হয়।

(ক) এক ধরনের লোক আছে যারা মসজিদে প্রবেশের পর তামাশা করে, তারা বিনিময়ে তামাশা ছাড়া কিছুই পাবে না।

(খ) দ্বিতীয় আরেক ধরনের লোক আছে যারা জুম’আয় হাজির হয় সেখানে দু’আ মুনাজাত করে, ফলে আল্লাহ যাকে চান তাকে কিছু দেন আর যাকে ইচ্ছা দেন না।

(গ) তৃতীয় প্রকার লোক হল যারা জুম’আয় হাজির হয়, চুপচাপ থাকে, মনোযোগ দিয়ে খুৎবা শোনে, কারও ঘাড় ডিঙ্গিয়ে সামনে আগায় না, কাউকে কষ্ট দেয় না, তার দুই জুম’আর মধ্যবর্তী ৭ দিন সহ আরও তিনদিন যোগ করে মোট দশ দিনের গুনাহ খাতা আল্লাহ তায়ালা মাফ করে দেন।” (আবু দাউদঃ ১১১৩)

৩২ প্রশ্ন: মেয়েদের যে যে সময় সবচেয়ে সুন্দর লাগে?

যখন হাসে। এই হাসিই তাদের সবচেয়ে বড় অস্ত্র।

যখন ঘুমায়। তখন তাদের মায়াবী দেখায়।

যখন আগ্রহ দৃষ্টিতে কারো দিকে আড় চোখে তাকায়।

কান্নার আগমূহুর্তে।

যখন তারা নিজের ঠোটে কামড় দেয়।

গোসল করার পর ভেজা চুলে।

যখন তাদের মনে প্রচন্ড আনন্দ থাকে, কিন্তু কুখে একটা লজ্জার আবরণ দিয়ে সেই আনন্দটা ঢাকার চেষ্টা করে।

যখন তাদের প্রসংসা করা হয়।

যখন তারা রেগে যায়।

গোধুলির সময়।

মোমবাতির আলোতে।

৩৩ প্রশ্ন: চুরি ও গবেষনার মধ্যে পার্থক্য কি?
উত্তর: একটি বই থেকে নিয়ে লিখলে সেটা হয় চুরি। আর কয়েকটা বই থেকে নিয়ে লিখলে সেটা হয় গবেষণা।

৩৪ প্রশ্ন: প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি কারা?
উত্তর: প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি হলেন তিনি, যাঁর বৃদ্ধি ওপর ও নিচ এ দুই প্রান্ত থেকে থেমে গেছে, কিন্তু পাশে বাড়ছে।

৩৫ প্রশ্ন: নির্বোধের সাথে র্তকে গেলে পরিনাম কি?
উত্তর: নির্বোধের সঙ্গে তর্কে যেয়ো না। সে তোমাকে নিজের পর্যায়ে নামিয়ে আনবে এবং নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে তোমাকে হারিয়ে দেবে।

৩৬ প্রশ্ন: সত্য একটি কথা?
উত্তর: মানুষ মাত্রেরই ভুল হয় কিন্তু অফিস মাত্রই তা ক্ষমা করে না।

৩৭ প্রশ্ন: আপনি কেমন করে মরতে পছন্দ করবেন?
উত্তর: আমি আমার দাদার মতো ঘুমের মধ্যে শান্তিতে মরতে চাই, তাঁর বাসের যাত্রীদের মতো চিত্কার করতে করতে নয়।

৩৮ প্রশ্ন: শিশুর সংজ্ঞা হলো কি?
উত্তর: যাদের জন্মের পর প্রথম দুই বছর চলে যায় হাঁটা আর কথা শেখায় এবং তার পরের ১৬ বছরই কেটে যায় তাদের মুখ বন্ধ রাখা আর স্থির হয়ে বসা শেখায়।

৩৯ প্রশ্ন: ব্যাংক থেকে লোন নেয়ার সহজ উপায় কোনটি?
উত্তর: আপনার যথেষ্ট পরিমাণ টাকা আছে, শুধু এটা বোঝাতে পারলেই আপনি কোনো ব্যাংক থেকে টাকা ধার পেতে পারেন।

৪০ প্রশ্ন: যদি তোমার মনে হয় যে তুমি বেঁচে আছ নাকি মরে গেছ, তা নিয়ে কারও কোনো মাথাব্যথা নেই, তাহলে কি করবে?
উত্তর: এক-দুই মাস বাড়ি ভাড়া দেওয়ার কথা ভুলে গিয়ে দেখতে পার।

৪১ প্রশ্ন: ভাবতে ভাবতে ক্লান্ত হয়ে পড়লেই কেবল আমরা কি সিন্ধ্যান্ত পৌঁছায়?
উত্তর: উপসংহারে পৌঁছাই।

৪২ প্রশ্ন: সন্ধ্যার খররে শুভসন্ধ্যা কেন বলা হয়?
উত্তর: সন্ধ্যার খবর শুরু করা হয় ‘শুভ সন্ধ্যা’ বলে। এরপর একে একে বলা হয় সন্ধ্যাটি কেন শুভ নয়।

৪৩ প্রশ্ন: যদি বলা হয় আকাশে কত তারা আছে?
উত্তর: আকাশে চার বিলিয়ন তারা আছে, তাহলে না গুনেই সবাই সেটা বিশ্বাস করবে। কিন্তু যদি বলা হয়, মাত্র রং করেছি, চেয়ারের রংটা এখনো শুকায়নি, তাহলে সবাই হাত দিয়ে দেখবে।

৪৪ প্রশ্ন: লক্ষ্যভেদ করতে চাইলে কি করতে হয়?
উত্তর: প্রথমে তীর ছোড়ো, তারপর যেটায় লাগে সেটাকেই লক্ষ্যবস্তু হিসেবে প্রচার করো।

৪৫ প্রশ্ন: আতিথেয়তা কী?
উত্তর: একটি গুণ যার কারণে অতিথিরা ভাবে, যেন তারা নিজের বাড়িতেই আছে।

৪৬ প্রশ্ন: আমি কাজ খুব ভালোবাসি যেমনঃ
উত্তর: কাজ আমাকে আকৃষ্ট করে। আর তাইতো আমি ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থেকে কাজের দিকে শুধু তাকিয়েই থাকি।

৪৭ প্রশ্ন: একজন সেলসম্যান হলো?
উত্তর: সেই ব্যক্তি, যিনি এমনভাবে আপনাকে নরকে যেতে বলবেন যে আপনি যাত্রার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করবেন।

৪৮ প্রশ্ন: মৃত্য কী ধরনের ব্যাপার?
উত্তর: মৃত্যু বংশানুক্রমিক একটা ব্যাপার।

৪৯ প্রশ্ন: পুরুষেরা কি ঘরের কাজে সাহায্য করে?
উত্তর: করে। মেয়েরা যখন ঘর পরিষ্কার করে, তখন তারা পা তুলে বসে।

৫০ প্রশ্ন: পৃথিবীতে তিন ধরনের মানুষ আছে যেমন?
উত্তর: ১. যারা গুনতে পারে। ২. যারা গুনতে পারে না।

৫১ প্রশ্ন: মানুষ যতদিনে বুঝতে পারে যে তার বাবা ঠিক কথাই বলত?
উত্তর: ততদিনে তার ছেলে বড় হয়ে তার ভুল ধরতে শুরু করে।

৫২ প্রশ্ন: কেউ যদি রলে অনেক ভালোবাসি তাহলে কি করা উচিত?
উত্তর: তাহলে তাজা গোলাপ ২৪ ক্যারেট সোনার ভেতর সিলমোহর করে পাঠাতে বলা উচিৎ।

৫৩ প্রশ্ন: আলঝেইমার (কিছু মনে না থাকার রোগ) রোগ হওয়ার একটি সুবিধা কি?
উত্তর: রোজই আপনি নতুন নতুন বন্ধু পাবেন।

৫৪ প্রশ্ন: যে লোক দুই কানে তুলা গুঁজে রাখে, তাকে কী বলা যায়?
উত্তর: তাকে যা ইচ্ছা তাই বলা যায়।

৫৫ প্রশ্ন: যে চিন্তাশক্তি দিয়ে সমস্যা সৃষ্টি করা হয় তাদিয়ে কি হয় না?
উত্তর: সেই একই চিন্তাশক্তি দিয়ে তা সমাধান করা যায় না।

৫৬ প্রশ্ন: ব্রেকফাস্টের আগে যে জিনিস দুটো কখনোই খাওয়া সম্ভব নয়?
উত্তর: সেগুলো হলো লাঞ্চ আর সাপার।

৫৭ প্রশ্ন: হাতুড়ির সবচেয়ে নিরাপদ ব্যবহার হলো কোনটি?
উত্তর: পেরেকটা অন্য কাউকে ধরতে দেওয়া।

৫৮ প্রশ্ন: বাড়ির কাজ না আনার সবচেয়ে খারাপ অজুহাত হলো কোনটি?
উত্তর: আমি দেখে লেখার মতো কাউকে পাইনি।

৫৯ প্রশ্ন: ধরুন, কোনো ব্যক্তি দুর্ঘটনায় তাঁর শরীরের বাঁ-পাশ পুরোটাই হারিয়েছেন। এখন তাঁর কী হবে?
উত্তর: তিনি এখন ‘অল রাইট’।

৬০ প্রশ্ন: ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী সন্ধ্যায়ও কাজ করেন কেন?
উত্তর: আরে, উনি তো পি.এম, এ এম নন।

৬১ প্রশ্ন: স্কুলে একজন বোকাকে কীভাবে চেনা যায়?
উত্তর: শিক্ষক যখন বোর্ড মোছেন, সে তখন তার সব ক্লাসনোট কেটে দেয়।

৬২ প্রশ্ন: মা এবং স্ত্রীর মধ্যে পার্থক্য কী?
উত্তর: একজনের কারণে তুমি কাঁদতে কাঁদতে পৃথিবীতে এসেছিলে, অন্যজনের কারণে তুমি সারা জীবন কাঁদবে।

৬৩ প্রশ্ন: স্ত্রী ও চুম্বকের মধ্যে পার্থক্য কী?
উত্তর: চুম্বকের একটি পজিটিভ দিক আছে।

৬৪ প্রশ্ন: বাচ্চা ছেলে হবে না মেয়ে হবে তা জানার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উপায় হলো কোনটি?
উত্তর: তার জন্ম পর্যন্ত অপেক্ষা করা।

৬৫ প্রশ্ন: পৃথিবীর স্বাস্থ্যক্ষেত্রে একটি পজিটিভ দিক বলুন।
উত্তর: এইচ আই ভি।

৬৬ প্রশ্ন: দুজন কম্পিউটার প্রোগ্রামার একসঙ্গে কীভাবে বড়লোক হতে পারে?
উত্তর: একজন ভাইরাস লিখে, অন্যজন অ্যান্টিভাইরাস লিখে।

৬৭ প্রশ্ন: গণিতের একটা বই আরেকটা বইকে কী বলে?
উত্তর: তোমার কথা জানি না, কিন্তু আমার ভেতরটা সমস্যায় ভর্তি।

৬৮ প্রশ্ন: আপনার স্ত্রী ড্রাইভিং শিখতে চাইলে কি করবেন?
উত্তর: তাঁর পথে বাধা হয়ে দাঁড়াবেন না।

৬৯ প্রশ্ন: মোটা লোকদের ছবি প্রিন্ট করতে কোন সাইজ করা উচিৎ?
উত্তর: পোস্টার সাইজ ছাপা উচিৎ।

৭০ প্রশ্ন: বিয়ে কেমন হয়?
উত্তর: সব বিয়েই সুখের। পরবর্তী সময়ে একসঙ্গে থাকতে গিয়েই যত ঝামেলা শুরু হয়।

৭১ প্রশ্ন: ব্যাচেলররা বৈবাহিক জীবন সম্পর্কে বিবাহিতদের চেয়ে বেশি জানে কেন?
উত্তর: নইলে তারাও বিবাহিত হতো।

৭১ প্রশ্ন: উড়োজাহাজের পেছনের সারিতে বসার কারণ দুটি কি?
উত্তর: এক. হয় আপনি ডায়রিয়ায় আক্রান্ত। দুই. আপনি আক্রান্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে পরিচিত হতে চান।

৭২ প্রশ্ন: অভিজ্ঞতা যে কোনো কাজে লাগে না তার প্রমাণ হলো?
উত্তর: মানুষ একটা প্রেম শেষ হওয়ার পরও আরেকবার প্রেমে পড়ে।

৭৩ প্রশ্ন: তিনি খুব অল্প কথার মানুষ। তাই না?
উত্তর: হ্যাঁ, সারা সকাল ধরে সেই কথাটাই তিনি বোঝালেন।

৭৪ প্রশ্ন: একটি পরিচ্ছন্ন ডেস্ক কিসের প্রতীক?
উত্তর: একটি এলোমেলো ড্রয়ারের প্রতীক।

৭৫ প্রশ্ন: স্ত্রী স্বামীর কাছে আরও বেশি স্বাধীনতা দাবি করলে কি করবেন?
উত্তর: করায় স্বামী মিস্ত্রি ডেকে রান্নাঘরটা বড় করে দিলেন।

৭৬ প্রশ্ন: ৩৫-এর পর আমার কি আর বাচ্চা নেওয়া ঠিক হবে?
উত্তর: না। ৩৫টা বাচ্চাই যথেষ্ট।

৭৭ প্রশ্ন: মেকানিক্যাল আর সিভিল ইঞ্জিনিয়ারের মধ্যে পার্থক্য কী?
উত্তর: মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার অস্ত্র বানায় আর সিভিল ইঞ্জিনিয়ার বানায় অস্ত্রের টার্গেট।

৭৮ প্রশ্ন: রাজনীতির মূল মন্ত্র কোনটি?
উত্তর: রাজনীতির প্রথম কথা হচ্ছে, রাজনীতিতে শেষ কথা বলে কিছু নেই।

৭৯ প্রশ্ন: নির্বাচন হচ্ছে গণতান্ত্রিক-ব্যবস্থার একটি চমত্কার উদার দিক কোনটি?
উত্তর: যেখানে সবাই মিলে ঠিক করে কে কে তাদের শোষণ করবে।

৮০প্রশ্ন: কারচুপি একটি প্রতিষ্ঠিত রাজনৈতিক শব্দ, পরাজিত দলের ভাষ্য কী?
উত্তর: স্থূল ও সূক্ষ্মরূপে জয়ী দল করে থাকে।

৮১প্রশ্ন: কোন খানা খাওয়া যায় না ?
উত্তর: কারখানা।।

৮২প্রশ্ন: কোন বরের বিয়ে হয় না ?
উত্তর: খবরের।।

৮৩প্রশ্ন: কোন তাল খাওয়া যায় না ?
উত্তর: হরতাল।।

৮৪প্রশ্ন: যে পানি খাওয়া যায় না ?
উত্তর: হ্যাপানি।।

৮৫প্রশ্ন: যে লেজ কোন পশুর নয় তা ?
উত্তর: কলেজ।।

৮৬প্রশ্ন: যে ডিম আজ পর্যন্ত দেখা যায় না ?
উত্তর: ঘোড়ার ডিম।।

৮৭প্রশ্ন: প্রাচীনকালে রোমান সৈন্যরা এক ধরনের বিশেষ পোশাক পরত, এখন মেয়েদের কাছে ওই বিশেষ পোশাকটাই ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়। সেটি কোনটি?
উত্তর: স্কার্ট।

৮৮প্রশ্ন: কতটি চাঁদের সমান পৃথিবী ওজন?
উত্তর: ৮১টি চাঁদের সমান আমাদের পৃথিবীর ওজন।

৮৯প্রশ্ন: আঙুল ছাড়া আর কিসের ছাপ অন্য মানুষ থেকে আলাদা?
উত্তর: ঠোঁটের ছাপ।

৯০প্রশ্ন: মানুষ ছাড়া আর কোন কোন প্রাণী আয়নায় নিজেকে চিনতে পারে?
উত্তর: শিম্পাঞ্জি ও ডলফিন।

৯১প্রশ্ন: কখন বুজবেন আপনারে জিহ্বায় ব্যাকটেরিয়া জমেছে?
উত্তর: আয়নার সামনে গিয়ে জিহ্বা বের করে দেখুন। জিহ্বার রঙ যদি গোলাপি হয় তাহলে বুঝা যাবে জিহ্বায় কোনো জীবাণু নেই। আর যদি সাদা হয়, তাহলে ব্যাকটেরিয়া জমেছে।

৯২প্রশ্ন: আপনার দাদুর বয়স কি সত্তর?
উত্তর: তাহলে তিনি এ পর্যন্ত ৯ হাজার গ্যালন পানি পান করেছেন।

৯৩প্রশ্ন:আপনার নাকের দৈর্ঘ্য এর সাথে শরীরের কোন অংশের দৈর্ঘ্য এর মিল রয়েছে?
উত্তর: আপনার নাকের দৈর্ঘ্য ও বুড়ো আঙুলের দৈর্ঘ্য মিলে গেছে? যদি মিলে যায় তবে আপনি স্বাভাবিক। আর যদি না মেলে তবে আর কী করা? এমন ব্যতিক্রম খুব কমই হয়।

৯৪প্রশ্ন: সুপার কম্পিউটারের সাথে মানুষের একটি পার্থক্য?
উত্তর: আমাদের মস্তিষ্কে আছে প্রায় ১০০ বিলিয়ন নার্ভ সেল। সবচেয়ে ক্ষমতাশালী কম্পিউটারের চেয়েও বেশ জটিল আমাদের একেকটি নার্ভ সেল।

৯৫প্রশ্ন: মানুষের শরীরে কতটি পেশি আছে?
উত্তর: ৬০০ টিরও বেশি।

৯৬প্রশ্ন: আমেরিকার ব্ল্যাক উইডো মাকড়সা কেমন বিষাক্ত ?
উত্তর: এক কামড়ে মানুষকে মেরে ফেলতে পারে।

৯৭প্রশ্ন: ভালুকের রং কি কালো হয়?
উত্তর: আমরা যাদের কালো ভালুক বলে চিনি, এরা কিন্তু মোটেও কালো নয়। এদের রং বাদামি, হলুদ, দারুচিনি এবং কখনো কখনো সাদা।

৯৮প্রশ্ন: আমরা তো খাবার খেয়েই ভাবি কাজ শেষ। এ খাবার পুরোপুরি হজম করতে পেটের কতক্ষণ সময় লাগে জানেন?
উত্তর: প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা।

৯৯প্রশ্ন: কোন মাছ পিছন দিকে সাঁতার কাটতে পারে?
উত্তর: ঈল মাছ পিছন দিকে সাঁতার কাটতে পারে।

১০০প্রশ্ন: উটপাখি কত গতিতে দৌড়াতে পারে?
উত্তর: ঘণ্টায় ৪৩ মাইল বা ৭০ কিলোমিটার বেগে। এ পাখি উড়তে পারেনা।

১০১প্রশ্ন: একজন মানুষ কোনো খাবার না খেয়ে বাঁচতে পারে কত দিন?
উত্তর: এক মাস, কিন্তু পানি পান না করলে এক সপ্তাহের বেশি বাঁচতে পারে না।

১০২প্রশ্ন: একটা বোয়িং ৪৭৪-৪০০ বিমানে কতটি যন্ত্রাংশ আছে?
উত্তর: ৬০ লাখ যন্ত্রাংশ আছে।

১০৩প্রশ্ন: একটি আনারস পূর্ণাঙ্গ হতে কত সময় লাগে?
উত্তর: দুই বছর।

১০৪প্রশ্ন: কোন প্রাণি বোমার মতো নিজেদের বিস্ফোরিত করতে পারে?
উত্তর: পিঁপড়ে

১০৫প্রশ্ন: কচ্ছপের কতটি দাঁত?
উত্তর: নেই।

১০৬প্রশ্ন: কুমির কিভাবে খাদ্য গ্রহণ করে?
উত্তর: গিলে। করণ কুমির চিবোতে পারে না।

১০৭প্রশ্ন: খুব জোরে হাঁচি দিলে শরীরের কিসমস্যা হতে পারে?
উত্তর: পাঁজরের হাড়ে চিড় ধরতে পারে। আবার চেপে রাখলে মাথা বা ঘাড়ের শিরা ছিঁড়ে যেতে পারে। সামান্য হাঁচির কী জোর রে বাবা!

১০৮প্রশ্ন: আপনি চোখ খোলা রেখে কোনটি কাজটি করতে পারবেন না?
উত্তর: হাঁচি।

১০৯প্রশ্ন: চার হাঁটুওয়ালা একমাত্র জন্তু নাম কি?
উত্তর: হাতি।

১১০প্রশ্ন: চোখের একটা পলক ফেলতে কত সময় লাগে জানো?
উত্তর: শূন্য দশমিক চার সেকেন্ড।

১১১প্রশ্ন: যখন আমরা কোনো কিছু স্পর্শ করি তখন ঘণ্টায় কত মাইল বেগে তথ্যটা মস্তিষ্কে পৌঁছায়?
উত্তর: ১২৪ মাইল বেগে।

১১২প্রশ্ন: টাইটানিক জাহাজ ও টাইটানিক সিরেমার মধ্যে পার্থক্য কী?
উত্তর: টাইটানিক জাহাজ বানাতে খরচ হয়েছিল সাত মিলিয়ন বা ৭০ লাখ ডলার। অর্থাৎ প্রায় সাড়ে ৫২ কোটি টাকা। আর দুনিয়াজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টিকারী ‘টাইটানিক’ সিনেমা বানাতে খরচ হয়েছে ২০০ মিলিয়ন ডলার, মানে ১৫০০ কোটি টাকারও বেশি।

১১৩প্রশ্ন: ধরা যাক একটা সিংহ এবং ভালুকের মধ্যে লড়াই হলো। কে জিতবে ভাবো তো একবার?
উত্তর: বনের রাজা হলেও ওই লড়াইয়ে কিন্তু ভালুকই জিতবে।

১১৪প্রশ্ন: মানুষের ব্যক্তিগত শীতাতপ নিয়ন্ত্রকযন্ত্র কোনটি?
উত্তর: নাকই হচ্ছে আমাদের ব্যক্তিগত শীতাতপ নিয়ন্ত্রকযন্ত্র। কারণ এটা শীতল বাতাসকে গরম করে, আবার গরম বাতাসকে শীতল করে এবং ময়লা- আবর্জনা ছাঁকুনি দিয়ে বিশুদ্ধ বাতাস টেনে নেয়।


দম ফাটানো হাসির কৌতুক

Load comments