Thursday, March 1, 2018

পহেলা বৈশাখের গান কবিতা নববর্ষ Bengali new year song poems

পহেলা বৈশাখের গান কবিতা  নববর্ষ Bengali new year song poems


1) বৈশাখী কবিতা
-সংগৃহীত
বৈশাখী রোদে আবার বেজেছে রঙিন কাঁচের চূড়ি
দখিনা বাতাসে আজ ওড়াবো আমার মন ঘুড়ি৷
বাসন্তী রঙ শাড়ির ভীরে আজ আবার হারাবো
কৃষ্ণচূড়ার লাল আগুনে মন আবার পোড়াব৷
আজ নাচবো আজ গাইবো আজ মাতবো প্রাণ খুলে
আজ নাচাবো আজ গাওয়াবো আজ মাতাবো সব ভুলে৷
আজ অনেক দিনের পরে হবে আবার সমর্পন
মন ঘুড়িটায় থাকবে ভরে লাজুক শিহরণ৷
আজ মন বাঁশরীর সুরে সুরে ভুবন মাতাবো
যাদুর কাঁঠির ছোঁয়ায় আজ তোমায় জাগাবো৷
তুমি হাসবে তুমি ফাঁসবে তুমি আমায় জড়াবে
তুমি দুষ্টু চোখের চাহনীতে আমায় ভরাবে৷
আজ বৈশাখের রঙের মেলায় আমার নিমন্ত্রণ
আজ ধন্য বড় ধন্য আমার ক্ষুদ্র তুচ্ছ জীবন৷


2) বৈশাখের কাছে প্রার্থনা
-নাসির আহমেদ
স্মৃতি ফুঁড়ে জেগে ওঠে সবুজ স্বপ্নের দিন পয়লা বৈশাখ
বৈশাখী মেলার বাঁশি বেজে ওঠে স্নায়ুকোষে, মেঘে শুনি ডাক
গুরুগুরু বৃষ্টিধারা আকাঙ্ক্ষার মাটি শোনে শুধু সম্ভাবনা
সুদূর শৈশব থেকে ধেয়ে আসা বৈশাখীর সেই কালো ফণা।
এখনো বৈশাখ মানে শুধু বৃষ্টি আশা? আর চৈত্রে ফাটা মাঠ
এখনো বৈশাখ মানে স্বপ্নাহত কৃষকের খেয়াহীন ঘাট?
দিন যায় মাস যায় বছর পেরিয়ে যায় কুহকিনী আশা
চৈত্রের মাঠের কাছে কেবলই ছড়িয়ে যায় বৃষ্টির পিপাসা।
এবার বৈশাখে তবে বৃষ্টি হোক স্নিগ্ধ বৃষ্টি পেলব কোমল
মাটিকে করুক শস্যবতী রমণীর মতো মায়াবী সজল
দৃষ্টির লাবণ্য মুগ্ধ করুক, আসুক ফিরে আকাঙ্ক্ষার দিন
দূর হোক দুঃখদৈন্য, হালখাতা খুলে তুমি মুক্ত করো ঋণ।
এবার বৈশাখ হোক ধ্বংসের ওপরে সৃষ্টি জাগানিয়া মাস
ফুলে ফুলে সুশোভিত নকশীকাঁথার মতো, এমন কি নিঃস্ব ঘাস
সে-ও যেন সজীবতা ফিরে পায় এবার বৈশাখে
ভরে থাক চরাচর নতুন আনন্দধ্বনি সুরতোলা ঢাকে।
বৈশাখী ঝড়ের কাছে এবার রেখেছি এই তীব্র আবেদন
ধ্বংস করো অন্ধকার, আলোয় ভরুক প্রিয় স্বদেশ অঙ্গন।


3) বৈশাখী শক্তির ঘুড়ি
-কাজী রোজী
বৈশাখী শক্তির কাছে বারবার মিনতি আমার
সারাটা শরীর জুড়ে থাক, থাক অবিরাম আরবার
ফসলের মাঠ হোক খটখটে রোদ্দুরে ভরা
জল সেচে এনে দেবো জমিনের সুখ উর্বরা
শহরের বৈশাখে শিল্প-মেলার আয়োজন
কালবোশেখির কাছে কখনো তা হয় ম্রিয়মাণ
রমনার বটমূলে হাজার গানের পাখি জড়ো হয়
দারুণ রুদ্রতাপে রবীন্দ্রসরোবরে সুখ বয়
মাটির পুতুল-মেলা সানকিতে পান্তা লবণ
নাগরদোলার রথে শিশুদের মনের ভ্রমণ
বাঁশির সুরের সাথে ডুগডুগি বাজায় ওরা
রেশমি চুড়ির হাতে লাল ফিতে পুঁতির মালা
বৈশাখী শক্তির কাছে এবারেও সেই দাবি রাখি
ঘুরে ঘুরে ঘরে ঘরে উড়ে যাক বাংলার পাখি
বাঙালির চেতনায় বৈশাখী সবগুলো দিন
আনন্দ পারাবারে রঙিন ঘুড়ির মতো উড্ডীন।


4) বৈশাখ মানেই.......
-আদনান সৈয়দ
বৈশাখ মানেই মায়ের হাসি
কৃষক বধুর চপল চোখ,
বৈশাখ মানেই প্রাণের পরশ
ছোট্ট আমার বাংলামুখ।

বৈশাখ মানেই উথাল-পাথাল
নাইচা নাইচা বাউল গান,
বৈশাখ মানেই বাংলা শিশুর
ছোট্ট গালে মিষ্টি প্রাণ।

বৈশাখ মানেই পাগলা হাওয়া
আকাশ জুড়ে মেঘলা দিন,
বৈশাখ মানেই তোমার কাছে
আমার কিছু জমলো ঋন।

বৈশাখ মানেই তোমার খোপায়
বেলি ফুলের প্রিয় মালা,
বৈশাখ মানেই তোমার চোখে
ভালোবাসার নিত্য জ্বালা।

বৈশাখ মানেই মেলায় মেলায়
জোড়ায় জোড়ায় বাসর ঘর,
বৈশাখ মানেই বুকের মাঝে
ভালোবাসার নতুন চর।

বৈশাখ মানেই নতুন কথা
বৈশাখ মানেই নতুন পথ,
বৈশাখ মানেই নতুন সকাল
ভালোবাসার রঙিন রথ!

5) নববর্ষের চিঠি
-মহাদেব সাহা
এবারও তেমনি শেষ চৈত্রের খর নিঃশ্বাসে
নতুন বছর আসবে হয়তো; কিন্তু তুমি কি জানো
এদেশে কখন আসবে নতুন দিন? কখন উদ্দীপনা
অবসাদ আর ব্যর্থতাকেই দেবে নিদারুণ হানা।
ছড়াবে হৃদয়ে আগামীর গাঢ় রঙে, ভাসাবে
মেঘের দূর নীলিমায় স্বপ্নের সাম্পান?
বলো না কখন এই ক্ষীণ হাতে ঘুরবে যুগের চাকা
কখন সত্যি নতুন বছরে আসবে নতুন দিন,
তুলবে তাদের গর্বিত মাথা আজ যারা নতজানু
এই প্রাসাদে ও অট্টালিকায় উড়বে তাদেরই নাম?
বলো না কখন ফুটবে গোলাপ গোলাপের চেয়ে বড়ো
কখন মানুষ পাবে এই দেশে শস্যের অধিকার
নতুন বছরে সেই অনাগত নতুনের প্রত্যাশা
বন্ধু, তোমাকে নববর্ষের সাদর সম্ভাষণ!

উদিত রবির প্রথম আলো,দূর করবে সকল কালো। বইবে মনে আনন্দধারা, সবাই হবে বাঁধনহারা। দিনটি হোক তোমার তরে, মন ভরে উঠুক খুশির ঝড়ে।
হ্যাপি নিউ ইয়ার..

Load comments