Monday, September 24, 2018

বাংলালিংক সিমে ১৪টাকায় ২৫মিনিট banglalink 14tk 25minute bundle package

বাংলালিংক সিমে ১৪টাকায় ২৫মিনিট banglalink 14tk 25minute bundle package

বাংলালিংক সিম ব্যাবহারকারি এখন পাবেন ধারুন এক বান্ডেল প্যাক।  কারণ এখন বাংলালিংক সিমে পাচ্ছেন মাত্র ১৪টাকায় ২৫মিনিট যে কোন নাম্বারে ।

বাংলালিংক ১৪টাকায় ২৫মিনিট বান্ডেল প্যাকটি কিনতে ডায়াল করুন  *1100*3# অথবা রিচার্য করুন ১৪টাকা আপনার বাংলালিংক সিমে।  ২৫মিনিট এর মেয়াদ পাবেন ২৪ ঘন্টা ।

ব্যালেস চ্যাক করতে ডায়াল করুন *121*35#

বাংলালিংক নতুন সিম অফার ২০১৮ ৩৩টাকায় ১জিবি ইন্টারনেট যত খুশি ততবার

বাংলালিংক নতুন সিম অফার ২০১৮ ৩৩টাকায় ১জিবি ইন্টারনেট যত খুশি ততবার Banglalink new sim offer

বাংলালিংক সিমে এখন পাবেন দারুন ইন্টারনেট অফার।  অফারটি সকল বাংলালিংক নতুন সিম ব্যাবহারকারি উপভোগ করতে পারবেন।  এর জন্য আপনাকে বাংলালিংক নতুন সিমে অফার প্রথমে ৪৮টাকা রিচার্য করতে হবে।  ৩মাসে পাবেন ৩৩টাকায় ১জিবি ইন্টারনেট যত খুশি তত বার।  এবং দেশের সেরা কলরেট।  বাংলালিংক নতুন সিম অফার।


এই অফারটি সেইসব প্রিপেইড গ্রাহকদের জন্য প্রযোজ্য যারা ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বা তারপর থেকে সংযোগ ব্যবহার করা শুরু করেছেন।

আপনাকে প্রথমে ৪৮ টাকা টাকা রিচার্য করতে হবে।  ৪৮টাকা রিচার্জে পাবেন স্পেশাল কল রেট ১ ৫৪ পয়সা/মিনিট যেকোনো অপারেটরে; ১ সেকেন্ড পালস ৯০দিন ।

সাথে পাবেন 1GB ইন্টারনেট ফ্রী মেয়াদ ১৫দিন  ব্যালেন্স দেখতে ডায়াল করুন *124*5#

এর পর থেকে নতুন বাংলালিংক সিমে ৩৩টাকা রিচার্জে পাবেন ১জিবি ইন্টারনেট যত খুশি তত বার।
৩৩ টাকা USSD-এর মাধ্যমে কিনতে *132*033#

 ইন্টারনেটের পরিমাণ 1GB আপনিমেয়াদ পাবেন ৭ দিন।
ব্যালেন্স জানতে ডায়াল করুন *124*300#
 অ্যাক্টিভেশনের প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে যতবার খুশি ততবার

নতুন সিমটির সাথে পাচ্ছেন  ৫ টাকা ব্যালেন্স, ১৫ দিন মেয়াদ চেক করতে ডায়াল করুন *124#
আরো পাচ্ছেন 50MB বোনাস ইন্টারনেট, মেয়াদ ৩ দিন। ইন্টারনেট ব্যালেন্স জানতে ডায়াল *124*5#
আরো পাবেন ৫০টি বোনাস SMS যেকোনো অপারেটরে, মেয়াদ ১০ দিন। ব্যালেন্স জানতে ডায়াল *124*300# ২২ পয়সা/১০ সেকেন্ড যেকোনো নাম্বারে দিন-রাত ২৪ ঘন্টা

বাংলালিংক নতুন সিম অফার 2018 ,বাংলালিংক অফার ২০১৮, বাংলালিংক নতুন ইন্টারনেট অফার, বাংলালিংক বন্ধ সিম অফার ২০১৮ ,বাংলালিংক অফার 2018, বাংলালিংক রিচার্জ ইন্টারনেট অফার, বাংলালিংক ইন্টারনেট অফার ২০১৮, বাংলালিংক ইন্টারনেট অফার 2018

রবি ইন্টারনেট টকটাইম এসএমএস বান্ডেল প্যাকেজ robi bundle package

রবি ইন্টারনেট টকটাইম এসএমএস বান্ডেল প্যাকেজ robi bundle package

রবি সিমে এখন পাবেন নতুন ইন্টারনেট কম্বো অফার। আপনি এখন এক রিচার্জে পাবেন ইন্টারনেট মিনিট এবং এসএসএস । অফারটি সকল রবি সিম ব্যাবহারকারি উপভোগ করতে পারবেন।  রবি সিম গ্রাহকরা পাবের মাত্র ৫৮ টাকা রিচার্য এ ৬০০ এমবি ৩০ মিনিট ৩০ এসএমএস। এবং আপনি ২৫১ টাকা রিচার্জে পাবেন  ২ জিবি ১৫০ মিনিট ১৫০ এসএমএস ।


বান্ডেল প্যাক গুলো কিনতে আপনাকে টাকা করতে হবে।
আপনি ৫৮ টাকা রিচার্জে পাবেন ৬০০ এমবি ৩০ মিনিট ৩০ টি এসএমএস যে কোন নাম্বারে, মেয়াদ ৭ দিন
আপনি ২৫১ টাকা টাকা রিচার্য পাবেন  ২ জিবি ১৫০ মিনিট ১৫০ টি এসএমএস মেয়াদ পাবেন ৩০ দিন।


রবি ইন্টারনেট ব্যালেন্স  চেক করতে ডায়াল করুন  *১২৩*৩*৫#
মিনিট ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল করুন *২২২*৮#
এবং এসএমএস চেক করতে ডায়াল করুন *২২২#১২#

Sunday, September 23, 2018

কথায় লেখা ১ থেকে ১০০০ পর্যন্ত সংখ্যা অংকে বাংলা ইংরেজিতে কথায় শিখে রাখুন

কথায় লেখা ১ থেকে ১০০০ পর্যন্ত  সংখ্যা অংকে বাংলা ইংরেজিতে কথায় শিখে রাখুন

০ থেকে ১০০ সংখ্যা - Numbers অংকে বাংলা ইংরেজি । অনেক সময় আমরা এই নাম্বারগুলো বাংলা ও ইংরেজিতে লিখতে ভুল করি বা ভূলে যাই। তাই সবার জন্য এই পোস্ট শেয়ার করছি।

০- শূন্য -zero
১- এক -one
২ -দুই -two
৩ -তিন -three
৪- চার -four
৫ -পাঁচ- five
৬ -ছয় -six
৭ -সাত -seven
৮ -আট -eight
৯ -নয় -nine
১০ -দশ- ten

১১ -এগার- eleven
১২ -বার -twelve
১৩ -তের -thirteen
১৪ -চৌদ্দ- fourteen
১৫ -পনের- fifteen
১৬ -ষোল -sixteen
১৭ -সতের- seventeen
১৮ -আঠার -eighteen
১৯ -ঊনিশ -nineteen
২০ -বিশ -twenty

২১ -একুশ- twenty one
২২ -বাইশ -twenty two
২৩- তেইশ -twenty three
২৪ -চব্বিশ -twenty four
২৫ -পঁচিশ -twenty five
২৬- ছাব্বিশ -twenty six
২৭ -সাতাশ -twenty seven
২৮ -আটাশ- twenty eight
২৯ -ঊনত্রিশ -twenty nine
৩০ -ত্রিশ -thirty

৩১- একত্রিশ -thirty one
৩২ -বত্রিশ -thirty two
৩৩ -তেত্রিশ -thirty three
৩৪- চৌত্রিশ -thirty four
৩৫ -পঁয়ত্রিশ -thirty five
৩৬ -ছত্রিশ -thirty six
৩৭ -সাঁইত্রিশ -thirty seven
৩৮ -আটত্রিশ -thirty eight
৩৯ -ঊনচল্লিশ -thirty nine
৪০ -চল্লিশ -forty

৪১ -একচল্লিশ -forty one
৪২ -বিয়াল্লিশ -forty two
৪৩ -তেতাল্লিশ -forty three
৪৪- চুয়াল্লিশ - forty four
৪৫ -পঁয়তাল্লিশ -forty five
৪৬ -ছেচল্লিশ- forty six
৪৭ -সাতচল্লিশ -forty seven
৪৮- আটচল্লিশ- forty eight
৪৯ -ঊনপঞ্চাশ -forty nine
৫০ -পঞ্চাশ- fifty

৫১ -একান্ন- fifty one
৫২ -বায়ান্ন- fifty two
৫৩ -তিপ্পান্ন -fifty three
৫৪ -চুয়ান্ন -fifty four
৫৫ -পঞ্চান্ন -fifty five
৫৬ -ছাপ্পান্ন -fifty six
৫৭ -সাতান্ন -fifty seven
৫৮ -আটান্ন -fifty eight
৫৯ -ঊনষাট -fifty nine
৬০ -ষাট- sixty

৬১ -একষট্টি -sixty one
৬২- বাষট্টি- sixty two
৬৩ -তেষট্টি -sixty three
৬৪ -চৌষট্টি -sixty four
৬৫ -পঁয়ষট্টি -sixty five
৬৬ -ছেষট্টি -sixty six
৬৭ -সাতষট্টি- sixty seven
৬৮ -আটষট্টি -sixty eight
৬৯ -ঊনসত্তর -sixty nine
৭০ -সত্তর -seventy

৭১ -একাত্তর -seventy one
৭২ -বাহাত্তর -seventy two
৭৩ -তিয়াত্তর- seventy three
৭৪ -চুয়াত্তর -seventy four
৭৫ -পঁচাত্তর -seventy five
৭৬ -ছিয়াত্তর- seventy six
৭৭ -সাতাত্তর -seventy seven
৭৮- আটাত্তর -seventy eight
৭৯ -ঊনআশি -seventy nine
৮০- আশি -eight

৮১ -একাশি -eighty one
৮২- বিরাশি- eighty two
৮৩ -তিরাশি -eighty three
৮৪- চুরাশি -eighty four
৮৫ -পঁচাশি- eighty five
৮৬ -ছিয়াশি -eighty six
৮৭ -সাতাশি -eighty seven
৮৮ -আটাশি -eighty eight
৮৯ -ঊননব্বই -eighty nine
৯০- নব্বই -ninety

৯১ -একানব্বই -ninety one
৯২- বিরানব্বই -ninety two
৯৩ -তিরানব্বই- ninety three
৯৪ -চুরানব্বই- ninety four
৯৫ -পঁচানব্বই -ninety five
৯৬ -ছিয়ানব্বই -ninety six
৯৭- সাতানব্বই -ninety seven
৯৮ -আটানব্বই -ninety eight
৯৯- নিরানব্বই -ninety nine
১০০ -একশত -one hundred


কথায় লিখ ১ থেকে ১০০, কথায় লেখা ৫০ থেকে ১০০, ১ থেকে ১০০ পর্যন্ত কথায় লেখা, ১ থেকে ১০০ পর্যন্ত বানান pdf,  ক্রমবাচক সংখ্যা ১-১০০ pdf,  ১ থেকে ১০০ পর্যন্ত বানান pdf download,  কথায় লেখা ১ থেকে ১০০,  কথায় লেখা ১ থেকে ১০০০,

Saturday, September 22, 2018

সহি ও শুদ্ধ ভাবে দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত ফরজ নামাজ আদায়ের নিয়ম কারণ পুরুষদের জন্য

সহি ও শুদ্ধ ভাবে দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত ফরজ নামাজ আদায়ের নিয়ম কারণ পুরুষদের জন্য

দৈনন্দি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ ।

(১) ফজরের দুই রকাত।

(২) জোহরের চার রাকাত। আর জুমার দিন জোহরের পরিবর্তে জুমার দুই রাত।

(৩) আছরের চার রাকাত।

(৪) মাগরিবের তিন রাকাত।

(৫) এশার চার রাকাত ।

ফরয নামাজের নিয়ম :

পবিত্রতা অর্জন করে নামাজের নিয়্যত করবে। আপনি কোন নামাজ পড়ছেন মনে মনে এতটুকু থাকাই নিয়্যতের জন্য যথেষ্ট। তবে তার সাথে মুখে উচ্চারণ করা উত্তম। তারপর ক্বিবলামুখি হয়ে দাড়াবে, দুই পায়ের গুড়ালি বরাবর থাকবে এবং দুই পায়ের মাঝে চার আংগুল পরিমাণ ফাকা থাকবে।

তারপর তাকবীরে তাহ্রীমা অর্থাৎ الله اڪبر (আল্লাহু আকবার) বলে উভয় হাত কান পর্যন্ত উঠাবে।, এ ক্ষেত্রে হাতের আংগুলগুলো সাভাবিক অবস্থায় ক্বিবলা মুখি থাকবে আর উভয় হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি উভয় কানের লতি বরাবর থাকবে।

তারপর হাত নামিয়ে ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি ও কনিষ্ঠা অঙ্গুলি দ্বরা হালকা বানিয়ে বাম হাতের কবজি ধরবে আর বাকী আঙ্গুলগুলো বাম হাতের উপর রাখবে।

অতঃপর নাভির নিচে বাধবে। দাড়ানো অবস্থায় দৃষ্টি থাকবে সেজদার জায়গায় । তারপর ছানা পড়বে

سبحانڪ اللهم وبحمدڪ وتبارڪ السمڪ وتعالى جدڪ ولا اله غي

উচ্চারণঃ সুবহানাকাল্লাহুম্মা অবিহামদিকা অতাবারকাসমুকা অতাআলা জাদ্দুকা অলাইলাহা গইরুকা

তারপর اعوذ بالله من الشيطن الرجيم

(উচ্চারণঃ আয়ুজু বিল্লাহি মিনাশ্শাই ত্বর্নিরজীম।) পড়বে এবং بسم الله الرحمن الرحيم (উচ্চারণঃ বিসমিল্লার্হিরহমার্নিরহীম। অর্থঃ পরম করুনাময় দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি) পড়বে।

তারপর সূরা ফাতেহা: الحمد لله رب العلمين الرحمن الرحيم مالڪ يوم الدين اياڪ نعبد و اياڪ نستعين اهدنا الصراط المستقيم صراط الذين انعمت عليهم غيرالمغصوب غليهم و لا الضلين পড়বে।

উচ্চারণঃ আলহামদু লিল্লাহি রব্বিল আলামীন আররহমানির রহীম মালিকি ইয়াওমিদ্দিন, ইয়্যাকানা’বুদু অইয়্যাকানাসতাইন। ইহদিনাছছিরতল মুসতাকীম। ছিরতল্লাযিনা আনআ’মতা আলাইহিম গইরিল মাগধুবি আলাইহিম। অলাদ্দল্লিন।
তারপর কোআনে কারীম থেকে যে কোন একটি সূরা মিলাবে। যেমন ফীল।

الم تر ڪيف فعل ربڪ باصحب الفيل الم يجعل ڪيد هم في تضليل و ارسل عليهم طيرا ابابيل ترميهم بحجارة من سجيل فجعلهم ڪعصف مآ ڪول

উচ্চারণঃ আলামতার কাইফা ফায়ালা রাব্বুকা বিআছহাবিল ফীল । আলাম ইয়াজ আল কাইদাহুম ফী তাদলীল। অআরসালা আলাইহিম তাইরান আবাবিীল। তারমীহিম বিহিজারতিম মিনসিজ্জীল। ফাজাআলাহুম কাআসফিম মাকূল।
তারপর তাকবীর বলে রুকুতে যাবে, হাতের আংগুলগুলো ফাকা রেখে দুই হাত দ্বারা উভয় হাটুকে ভালভাবে আকড়ে ধরবে। এবং মাথা, পিঠ ও মাজা সমান থাকবে কোন উঁচু নিচু থাকবে না। রুকুতে থাকা অবস্থায় দৃষ্টি থাকবে পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলির দিকে। তারপর রুকুর তাসবীহ পড়বে।

سبحان ربي العظيم

উচ্চারণঃ সুবহানা রাব্বিয়াল আজীম। অর্থঃ আমার মহান প্রতিপালক পবিত্র। তিন বার পড়বে। তবে পাঁচ বার , সাত বারও পড়তে পারবে।

তারপর سمع الله لمن حمده (উচ্চারণঃ সামিয়াল্লাহুলিমান হামিদাহ । অর্থঃ যে আল্লাহর প্রশংসা করে আল্লাহ তার প্রশংসা শুনেন।) বলে রুকু থেকে সুজা হয়ে দাড়াবে। তারপর الله اڪبر বলে সেজদায় যাবে । সেজদায় যাওয়ার সময় দুই হাতে হাটু ধরে সর্বপ্রথম উভয় হাটু একত্রে জমীনে রাখবে।

তারপর হাতের আঙ্গুলগুলো মিলানো অবস্থায় দুই হাত জমীনে একত্রে রাখবে। এবং চেহারার চওড়া অনুযায়ী দুই হাতের মাঝে ফাঁকা রাখবে।তারপর দুই হাতের মাঝে সেজদা করবে প্রথমে নাক তারপর কপাল রাখবে উভয় হাতের শধ্যখানে বৃদ্ধ আঙ্গুলদ্বয়ের বরাবরে নাক রাখবে । নজর নাকের উপর রাখবে ।

পুরুষের পেট রান থেকে বাহু পাজর থেকে হাতের কনুই জমীন থেকে পৃথক রাখবে। পায়ের আঙ্গুল সমূহকে কিবলামুখী করে রাখবে এবং দুই পায়ে গুড়ালি মিলিয়ে না রেখে বরং টাকনু কাছা কাছি রাখবে। যথা সম্ভব পায়ের আঙ্গুলগুলো জমীনের সাথে চেপে ধরে আঙ্গুলের অগ্রভাগ ক্বিবলার দিকে রাখবে।

সেজদার মধ্যে তিন বার سبحان ربي الاعلى পড়বে। তবে পাঁচ বার , সাত বারও পড়তে পারবে।

(উচ্চারণঃ সুবহানা রব্বিয়াল আয়লা । অর্থঃ আমার মহান প্রতিপালক মহা পবিত্র।) তিনবার সাতবারও পড়তে পারবে।

তারপর الله اڪبر বলে সেজদা থেকে উঠে বসবে। প্রথম কপাল তারপর নাক তারপর হাত উঠাবে। তারপর বাম পা জমীনে বিছিয়ে তার উপর বসবে। আর ডান পা দার করিয়ে রাখবে । পায়ের আঙ্গুলগুলো কিবলামুখী করে জমীনে রাখবে।

দুই হাত উভয় রানের উপর রাখবে। হাতের আঙ্গুলগুলো সামান্য ফাঁকা রেখে আঙ্গুলের মাথার অগ্রভাগ হাটুর কিনারা বরাবর রাখবে। তারপর اللهم اغفرلى ارحمني وارزقني واهدنى পড়বে। তারপর الله اڪبر বলে দ্বিতীয় সেজদা করবে।

দ্বিতীয় সেজদা শেষ করে আবার الله اڪبر বলে সেজদা থেকে সুজা দাড়িয়ে যাবে। তারপর দ্বিতীয় রাকাতেও ঠিক প্রথম রাকাতের মতই । প্রথম সূরা ফাতেমা পড়বে । তারপর بسم الله الرحمن الرحيم পড়ে যে কোন একটি সূরা মিলাবে।
তারপর প্রথম রাকাতের মতই রুকু সেজদা করবে। দুটি সেজদা শেষ করে দুই সেজদার মাঝে বসার ন্যায় বসবে এবং দুই হাত রানের উপর হাটু বরারব রাখবে । আর দৃষ্টি থাকবে কোলের দিকে। তারপর তাশাহ্হুদ পড়বে।

التحيات لله و الصلوات والطيبات السلام عليڪ ايها النبي ورحمة الله وبرڪاته السلام علينا وعلي عباد الله الصلحين اشهد الا اله الا الله واشهد ان محمدا عبده ورسوله

উচ্চারণঃ আত্তাহিয়্যাতু লিল্লাহি অছ্ছলাওয়াতু অত্তয়্যিাবাতু আস্সালা মু আলাইকা আইয়ুহান্নাবিয়্যু অরহমাতুল্লাহি অবারকাতুহু আস্সালামু আলানা অআলা ইবাদিল্লাহিছ্ছলিহীন আশহাদু আল্লা ইলাহা ইল্লাহু অ আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান আবদুহু অরসূলুহু।
তাশাহ্হুদ পড়ার সময় ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি ও মধ্যমা অঙ্গুলি দ্বারা হালকা বানাবে এবং اشهد الا اله বলার সময় শাহাদাত অঙ্গুলি উঠাবে الا الله বলার সময় নামিয়ে ফেলবে। বাকী দুটি আঙ্গুল তালুর সাথে মিলিয়ে রাখবে।
নামাজ যদি দুই রাকাত বিশিষ্ট হয়, তাহলে তাশাহ্হুদের পরে দরুদে ইব্রাহীম পড়বে।

اللهم صل علي محمد و علي ال محمد ڪما صليت علي ابراهيم و علي ال ابراهيم انڪ حميد مجيج اللهم بارڪ محمد و علي ال محمد ڪما بارڪت علي ابراهيم ر علي ال ابراهيم انڪ حميد مجيد

উচ্চারণঃ আল্লাহুম্মা ছাল্লি আলা মুহাম্মাদিউ অ আলা আলি মুহাম্মাদিন কামা সল্লাইতা আলা ইব্রাহীমা অ আলা আলি ইব্রাহীম ইন্নাকা হামীদুম্মাজীদ। আল্লাহুম্মা বারিক আলা মুহাম্মাদিউ অ আলা আলি মুহাম্মাদিন কামা বারকতা আলা ইব্রাহীমা অ আলা আলি ইব্রাহীম ইন্নাকা হামীদুম্মাজীদ।

তারপর দোয়ায়ে মাছুরা পড়বে।

اللهم اني ظلمت نفسي ظلما ڪثيرا و لا يغفر الذنوب الا انت فاغفرلي مغفرة من عندڪ انڪ انت الغفور الرحيم

উচ্চারণঃ আল্লাহুম্মা ইন্নি জলামতু নাফছি জুলমান কাসিরান অলা ইয়াগফিরুজ্জুনুবা ইল্লা আন্তা ফাগফিরলী মাগফিরতাম মিন ইন্দিকা ইন্নাকা আন্তাল গফুরুররহীম।

তারপর السلام عليڪم ورحمة الله ( আস্সালামু আলাইকুম অরহমাতুল্লাহ) বলে সালাম ফিরাবে । প্রথমে ডান পাশে তারপর বাম পাশে। সালাম ফিরানোর সময় দৃষ্টি থাকবে কাঁধের দিকে ডান পাশে সালাম ফিরানোর সময় ডন কাঁধের দিকে আর বাম পাশে ফিরানোর বাম কাঁধের দিকে।

ডান পাশে সালাম ফিরানোর সময় সালামের দ্বারা নিয়্যত থাকবে ডান পাশের ফেরেশতাদের আর বাম পাশে সালাম ফিরানোর সময় নিয়্যত থাকবে বামপাশের ফেরেশতাদের ।

আর যদি তিন রাকাত বিশিষ্ট নামাজ হয়, তাহলে দুই রাকাতের পর যে বৈঠক হবে তাহবে প্রথম বৈঠক। এই প্রথম বৈঠকে শুধু তাশাহ্হুদ পড়ে তৃতীয় রাকাতের জন্য দাড়িয়ে যাবে আর তৃতীয় রাকাতে সূরা ফাতেহা পড়বে কিন্তু কোন সূরা মিলাবে না।

তৃতীয় রাকাত শেষ করে তাশাহ্হুদ, দুরুদ শরীফ ও দোয়ায়ে মাছুরা পরে সালাম ফিরাবে।

নামাজ যদি চার রাকাত বিশিষ্ট হয়, তাহলে প্রথম বৈঠকে শুধু তাশাহ্হুদ পড়বে তারপর আরো দুই রাকাত পড়বে।আর এই দুই রাকাতে শুধু সূরা ফাতেহা পড়বে, কোন সূরা মিলাবে না। চতুর্থ রাকাতের পরে শেষ বৈঠকে তাশাহ্হুদ, দুরুদ শরীফ ও দোয়ায়ে মাছুরা পড়ে সালাম ফিরাবে।

নামাজ পড়ার নিয়ম ও দোয়া
মহিলাদের নামাজের সঠিক নিয়ম
নামাজে সূরা মিলানোর নিয়ম
সঠিকভাবে নামাজ পড়ার নিয়ম
চার রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ম
পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ এর নিয়ম
জামাতে নামাজ পড়ার নিয়ম
ফজরের নামাজ পড়ার নিয়ম

নিয়েনিন সুন্দরী মেয়েদের ফোন নাম্বার মাগীদের ফোন নাম্বার hot girls phone number

 প্রেম করতে  সহজে নিয়েনিন সুন্দরী মেয়েদের ফোন নাম্বার মাগীদের ফোন নাম্বার hot girls phone number  মেয়েদের ফোন number
আজকে আপনাদের জানাবো কিভাবাবে মেয়েদের ফোন নাম্বার পাবেন সহজে । তাদের সাথে সরাসরি কথা বলতে পারবেন লাইভে।  এখানে আনেক সুন্দরি সুন্দরি মেয়েদের পাবেন । আনেক ছেলে মেয়ে দের দেখতে পারবেন । 




এপস টি ডাউনলোড দিয়ে তারপর ফেইসবুক,  গুগুল,  বা ফোন নাম্বার দিয়ে খুপ সহজে একাউন্টা করতে পারবেন । একটাউন্ট করলে দেখবেন আনেকে লাইভে আছে কথা বলতেছে । আপনি সরাসরি কথা বলতে পারবেন ,এসএমএস দিতে পারবেন এবং নিজে যে কোন কিছু লাইভে শেয়ার করতে পারবেন।  এখানে দেখবেন আনেক মেয়ে তাদের ফোন নাম্বার শেয়ার করছে।

কিভাবে চালাবেন একাউন্টা করবেন জানতে নিচের ভিডিওটি দেখুন :-

মেয়েদের ফোন নাম্বার, মেয়েদের মোবাইল নাম্বার facebook, প্রেম করতে চাই, প্রেম করার জন্য মেয়েদের ফোন নাম্বার চাই, মোবাইল নাম্বার জানার উপায় , প্রেম করব , কলকাতার মাগীদের মোবাইল নাম্বার, নিয়েনিন সহজে ঢাকার সুন্দরী মেয়েদের ফোন নাম্বার মাগীদের ফোন নাম্বার hot girls phone number , কলেজের মেয়েদের ফোন number স্কুলের,